How to apply Old age pension/ widow pension কীভাবে বার্ধক্য ভাতা এবং বিধবা ভাতার জন্য আবেদন করবেন ?

How to apply Old age pension/ widow pension কীভাবে বার্ধক্য ভাতা এবং বিধবা ভাতার জন্য আবেদন করবেন ?

বর্তমান দিনে এখনো বার্ধক্য ভাতা বা বিধবা ভাতা বা শিশুদের শারীরিক অক্ষমতার জন্য অনলাইনে আবেদন করার সুবিধা নেই। বার্ধক্য ভাতা বা বিধবা ভাতা এর জন্য ফর্ম ফিলাপ করে পঞ্চায়েত বা বিডিও অফিসে গিয়ে জমা করতে হবে । এখন আবেদন করার জন্য  ফর্ম কিভাবে ডাউনলোড করবেন ? ফর্ম এর সঙ্গে কি কি কাগজ পত্র দেবেন এবং কোন অফিসে গিয়ে জমা করতে হবে এই সমস্ত কিছু এখন থেকে জানতে পারবেন ।

বার্ধক্য ভাতা বা বিধবা ভাতার জন্য ফর্ম কিভাবে ডাউনলোড করবেন ?

Step 1: এখানে যে লিংকটা দেওয়া আছে সেটাতে সবার প্রথম ক্লিক করুন - www.wbswpension.gov.in

Step 2: তারপর নিচে দেখানো ছবির মত একটি ওয়েবসাইটে চলে আসবেন এবং সেখানে "Download" অপশন দেখতে পাবেন ।

Step 3: ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করবেন এবং দুটো অপশন দেখতে পাবেন একটা হল Form এবং দ্বিতীয় টা হল "User Manuals" তো আপনি Form অপশন এ ক্লিক করবেন ।

Step 4: Form এ ক্লিক করে দেওয়ার সাথে সাথেই ডাউনলোড অপশন দেখাবে সেখানে ক্লিক করলেই ফরমটি ডাউনলোড হয়ে যাবে

এইভাবে Form টি ডাউনলোড করে আপনি প্রিন্ট করে নেবেন এবং তারপর আপনি বার্ধক্য ভাতার জন্য এপ্লাই করতে চাইলে বা বিধবা ভাতার জন্য এপ্লাই করতে চাইলে বা শিশুদের শারীরিক অক্ষমতার পেনশন পাওয়ার জন্য এপ্লাই করতে চাইলে Form টি আপনি এইভাবে ফিলাপ করবেন ।

বার্ধক্য ভাতা বা বিধবা ভাতা পেনশনের জন্য  ফরমটি যেভাবে ফিলাপ করবেন

Step 1: নতুন পেনশন এর জন্য আবেদন করতে চাইলে প্রথমের কালামে আপনি নিউ অপশনে ক্লিক করুন অথবা আপনার পেনশন রেনুয়াল করার জন্য আপনি এক্সিটিং ঘরে ক্লিক করতে পারেন

Step 2: বার্ধক্য ভাতার জন্য এপ্লাই করতে চাইলে Old Age এ টিক করুন শিশুদের শারীরিক অক্ষমতা পেনশনের জন্য এপ্লাই করতে চাইলে Disability তে ক্লিক করুন এবং বিধবা ভাতার জন্য এপ্লাই করতে চাইলে শেষে Widow অপশনে ক্লিক করুন

Step 3: তারপর আপনার পার্সোনাল ডিটেইলস ফিলাপ করুন অর্থাৎ আধার কার্ড নাম্বার ভোটার কার্ড নাম্বার আবেদন কারীর নাম তার জেন্ডার জন্ম তারিখ বাবার নাম এবং ঠিকানা ।

Step 4: তারপর আপনার কন্টাক্ট ডিটেইলস গুলো ফিলাপ করুন যেমন মোবাইল নাম্বার ইমেইল আইডি এই সমস্ত

Step 5: শিশুদের শারীরিক অক্ষমতা পেনশনের জন্য যদি আপনি আবেদন করেন তাহলে ডিসেবিলিটি পেনশন অপশন টায় কত পার্সেন্ট দিসাবিলিটি তা ফিলাপ করুন এবং ওই কালাম টি সম্পূর্ণ কমপ্লিট করুন

Step 6: তারপর আপনার ব্যাংকের নাম ব্যাংকের ব্রাঞ্চ এর নাম অ্যাকাউন্ট নাম্বার এবং আইএফএসসি কোড ভালোভাবে ফিলাপ করুন

Step 7:  তারপর বেনেফিশিয়ারি সিগনেচার এর জায়গায় আপনি নিজের সই করুন এবং উপরে পাসপোর্ট মাপের এক কপি রঙিন ছবি সেটে দিন ।
এখন সম্পূর্ণ ক্রন্টি জমা করার জন্য পুরোপুরি ভাবে তৈরি হয়ে গেল

ফ্রন্টের সঙ্গে যে সমস্ত কাগজপত্র দেবেন

এখানে যে সমস্ত কাগজপত্র গুলির নাম আছে সেগুলোর প্রতিটি এক কপি করে জেরক্স নিজের সই করে ফর্মটির সাথে দিতে হবে

1) আধার কার্ডের এক কপি জেরক্স 
2) ভোটার কার্ডের এক কপি জেরক্স 
3) রেশন কার্ডের এক কপি জেরক্স 
4) ফিজিকাল হ্যান্ডিক্যাপ সার্টিফিকেট এর জেরক্স (যদি শিশুদের শারীরিক অক্ষমতার জন্য এপ্লাই করেন)
5) ইনকাম সার্টিফিকেট 
6) ভারতের স্থায়ী বাসিন্দা সার্টিফিকেট এবং 
7) পাস বইয়ের জেরক্স কপি 
8) বিধবা ভাতার জন্য এপ্লিকেশন করলে স্বামীর ডেট সার্টিফিকেট এর এক কপি জেরক্স

এইভাবে ফরমটি ফিলাপ করে উপরে উল্লেখিত কাগজপত্র গুলি ফরমের সঙ্গে সেঁটে দিয়ে আপনার নিকটবর্তী পঞ্চায়েত অফিস বা বিডিও অফিসে  জমা করে দিন তাহলেই আপনার বার্ধক্য ভাতা বা বিধবা ভাতা বা শিশুদের শারীরিক সক্ষমতার পেনশনের জন্য আবেদন করা হয়ে যাবে

Post a comment

1 Comments